ক্রেডিট কার্ড সক্রিয় না হওয়া পর্যন্ত বা লেনদেন না হলে চার্জ আরোপ করা যাবে না

281
ক্রেডিট কার্ড

নিউজ ডেস্কঃ ক্রেডিট কার্ড সক্রিয় না হওয়া পর্যন্ত বা লেনদেন না হলে কোন ধরনের ফি বা চার্জ আরোপ করা যাবে না বলে নির্দেশ দিয়েছে বাংলাদেশ ব্যাংক। মঙ্গলবার (১৫-০২-২০২২ ইং) এ বিষয়ে প্রজ্ঞাপন জারি করে ব্যাংকের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহীদের কাছে পাঠিয়েছে কেন্দ্রীয় ব্যাংক।

 

এতে বলা হয়, সম্প্রতি লক্ষ্য করা যাচ্ছে যে, ক্রেডিট কার্ড ইস্যুর পরে গ্রাহক ওই কার্ড সক্রিয় করার আগেই ব্যাংক কর্তৃক এর বিপরীতে বিভিন্ন ধরনের নন-ট্রানজেকশনাল ফি বা চার্জ (বার্ষিক ফি, সিআইবি ফি, এসএমএস ফি ইত্যাদি) আরোপ করা হচ্ছে এবং তা অনাদায়ে গ্রাহককে বিরূপমানে শ্রেণিকরণ করা হচ্ছে।

 

যার ফলশ্রুতিতে জনসাধারণের মাঝে বিভ্রান্তির সৃষ্টি হচ্ছে এবং গ্রাহক বিবিধ ক্ষয়ক্ষতির সম্মুখীন হচ্ছেন। বিদ্যমান প্রেক্ষাপটে, গ্রাহক স্বার্থ সংরক্ষণ এবং কার্যকর পেমেন্ট ইকোসিস্টেম নিশ্চিতকরণের লক্ষ্যে ব্যাংক কর্তৃক ক্রেডিট কার্ডের বিপরীতে নন-ট্রানজেকশনাল ফি বা চার্জ আরোপের বিষয়ে নিম্নবর্ণিত নির্দেশনা দেওয়া হলো:

 

ক্রেডিট কার্ড সক্রিয় করার আগে গ্রাহকের উপর কোনরূপ নন-ট্রানজেকশনাল ফি বা চার্জ (বার্ষিক ফি, সিআইবি ফি, এসএমএস ফি ইত্যাদি) আরোপ করা যাবে না। গ্রাহকের সম্মতি না নিয়ে ক্রেডিট কার্ড সক্রিয়করণ পরবর্তীতে গ্রাহকের ওপর নন-ট্রানজেকশনাল ফি বা চার্জ আরোপ করা যাবে।

 

তবে সক্রিয় ক্রেডিট কার্ডে গ্রাহকের লেনদেন (কেনাকাটা, নগদ উত্তোলন বা অন্য কোনো ধরনের মার্চেন্ট ট্রানজেকশন) সংক্রান্ত কোনো দায় না থাকলে অপরিশোধিত বা বিলম্বে পরিশোধজনিত কারণে নন-ট্রানজেকশনাল ফি বা চার্জ এর অতিরিক্ত কোনরূপ জরিমানা আরোপ করা যাবে না। নন-ট্রানজেকশনাল ফি বা চার্জ এর উপর কোনো অবস্থাতেই সুদ বা মুনাফা আরোপ করা যাবে না। নন-ট্রানজেকশনাল ফি বা চার্জ সংক্রান্ত অপরিশোধিত দায়ের জন্য গ্রাহককে বিরূপমানে শ্রেণিকরণ করা যাবে না।

 

তবে ক্রেডিট কার্ডে গ্রাহকের লেনদেন সংক্রান্ত দায় গ্রাহক কর্তৃক যথাসময়ে পরিশোধিত না হলে ঋণ শ্রেণিকরণ ও প্রভিশনিং বিষয়ক নীতিমালা অনুসরণপূর্বক গ্রাহককে বিরূপমানে শ্রেণিকরণ করা যাবে; এবং ক্রেডিট কার্ডের বিল সম্পূর্ণ বা আংশিকভাবে আদায় হলে আরোপিত নন-ট্রানজেকশনাল ফি বা চার্জ সমন্বয়ের পরে গ্রাহকের লেনদেন সংক্রান্ত দায় সমন্বয় করা যাবে।

 

এ নীতিমালা জারির পূর্বে ক্রেডিট কার্ডে লেনদেন সংক্রান্ত দায় না থাকা সত্ত্বেও শুধুমাত্র অপরিশোধিত নন-ট্রানজেকশনাল ফি বা চার্জ এর কারণে বিরূপমানে শ্রেণিকরণ করা হয়েছে এরূপ গ্রাহকের শ্রেণিমান সংশোধনের জন্য প্রয়োজনীয় ব্যবস্থা গ্রহণ করতে হবে। এ নির্দেশনা অবিলম্বে কার্যকর হবে।

 

কেন্দ্রীয় ব্যাংকের এ নির্দেশনা অনুযায়ী ইতোমধ্যে গ্রাহেকদের এ জাতীয় পাওনার বিষয়ে যাদের খেলাপী হিসাবে গন্য করা হয়েছে তাদের তথ্য নিয়মিত গ্রাহক হিসাবে হালনাগাদ করতে বলেছে বাংলাদেশ ব্যাংক।

Related Post:
ডলারসহ পাঁচ বৈদেশিক মুদ্রার লেনদেন আরটিজিএসে